আজকের বাছাই

৩ ডিসেম্বর ।। আজকের বাছাই

সববাংলায় সাইটে নিয়মিত তথ্যসমৃদ্ধ কন্টেন্ট প্রকাশিত হয় তা আপনারা সকলেই জানেন। কিন্তু নির্ধারিত কোন দিনে বিশেষ ঘটনা কী ঘটেছে বা কী উৎসব/অনুষ্ঠান আছে সে সম্পর্কে বিস্তারিত তথ্য জানতে হলে আমাদের সাইটের প্রথম পাতায় এলে দেখতে পেতেন না। এইজন্য আপনাদেরকে সার্চ ইঞ্জিনে বা সাইটে খুঁজতে হয় অথবা আমাদের সোশ্যাল মিডিয়া পেজ থেকে দেখতে হয়। এই অসুবিধা উপলব্ধি করে আমরা আপনাদের জন্য এই বিশেষ কন্টেন্টটির ব্যবস্থা করেছি। এবার থেকে রোজ sobbanglay.com এ আসুন আর পড়ে নিন এই বিশেষ কন্টেন্ট। আপনি এক জায়গায় পেয়ে যাবেন সেই দিনের গুরুত্বপূর্ণ তথ্য। তারপর নিজের ইচ্ছেমত ক্লিক করে পড়ে নিতে পারবেন বিস্তারিত তথ্য।

আজ কী পড়বেনঃ

আজকের পালনীয় দিবসঃ

  • আজ বিশ্ব প্রতিবন্ধী দিবস। প্রতিবন্ধীদের ‘বিশ্বের সর্ববৃহৎ সংখ্যালঘু’ বলা হয়ে থাকে। সারা বিশ্বের জনসংখ্যার ১৫ শতাংশ মানুষই কোনো না কোনোভাবে প্রতিবন্ধী। ১৯৯২ সালে প্রথম রাষ্ট্রসংঘের উদ্যোগে এই দিনটি সারা বিশ্বে পালিত হয়। এর আগে রাষ্ট্রসংঘ ১৯৮১-র সমগ্র বছরটিকে ‘আন্তর্জাতিক প্রতিবন্ধী বছর’ (International Year for Disabled Persons) হিসেবে ঘোষণা করেছিল। এই দিনটি সম্বন্ধে বিশদে জানতে দেখুন এখানে – https://sobbanglay.com/sob/international-day-of-disabled-persons

ঐতিহাসিক গুরুত্বপূর্ণ ঘটনাঃ

  • আজ বীর বিপ্লবী ক্ষুদিরামের জন্মদিন। মাত্র ১৮ বছর বয়সে হাসতে হাসতে ফাঁসির মঞ্চে জীবন উৎসর্গ করেছিলেন ব্রিটিশ বিরোধী সশস্ত্র আন্দোলনের সর্বকনিষ্ঠ শহীদ বিপ্লবী বীর ক্ষুদিরাম বসু। তাঁকে নিয়ে বিস্তারিত জানতে পড়ুন এখানে https://sobbanglay.com/sob/khudiram-bose/
  • নিজের দোষ স্বীকার করে নেওয়ায় ক্ষুদিরাম বসুর শেষ বিচার খুব কম সময়ের মধ্যেই শেষ হয়। উকিলরা অনেক চেষ্টা করেও ক্ষুদিরামকে নিজের দোষ অস্বীকার করানোর জন্য রাজি করাতে পারেননি। তাঁরা চেষ্টা করেছিলেন বোমা ছোঁড়ার দোষ প্রফুল্ল চাকীর উপর চাপিয়ে দিয়ে সাজা যদি কিছু কমানোর ব্যবস্থা করা যায়। কিন্তু কিছুতেই কিছু লাভ হয়নি। ক্ষুদিরাম বসুর শেষ বিচার নিয়ে বিশদে জানতে পড়ুন এখানে https://sobbanglay.com/sob/last-trial-of-khudiram-bose/
  • ক্ষুদিরাম বসুর উকিল কালিদাসবাবুর বয়ানে তাঁর ফাঁসির চাক্ষুস বর্ণনা জানতে পড়ুন এখানে https://sobbanglay.com/sob/khudiram’s-execution
  • আজ নন্দলাল বসুর জন্মদিন। তিনি একজন ভারতীয় বাঙালি চিত্রশিল্পী যাঁর হাত ধরে বিংশ শতাব্দীর শুরুতে স্বকীয় বৈশিষ্ট্যে উজ্জ্বল এক নব্য শিল্প-চেতনার প্রতিশ্রুতি ছড়িয়ে পড়েছিল গোটা ভারতে। নেহরুর অনুরোধে দেশের সর্বোচ্চ সম্মান ‘ভারতরত্নে’র অশ্বত্থপাতা, নক্সাসহ পদ্মশ্রী, পদ্মভূষণ ও পদ্মবিভূষণের মানপত্রের সচিত্রকরণ তাঁরই কৃতিত্ব। ভারতীয় সংবিধানের মূল পাণ্ডুলিপিটিও নন্দলাল ও তাঁর ছাত্র রামমনোহর সিংহের হাতেই অলঙ্কৃত। তাঁর সম্পর্কে জানতে পড়ুন https://sobbanglay.com/sob/nandalal-bose/
  • আজ মানিক বন্দ্যোপাধ্যায়ের মৃত্যুদিন। জন্মের পর ঘুটঘুটে কালো গায়ের রং দেখে আঁতুর ঘরেই আদর করে তাঁর নাম দেওয়া হয়েছিল কালোমানিক। ছোট বেলায় হাঁটতে শেখার পর বাড়ির আঁশবটিতে তিনি একবার নিজের পেট কেটে দুফালা করে ফেলেছিলেন। সেই দুরন্ত শিশুকেই বাংলা সাহিত্য জগত চেনে মানিক বন্দ্যোপাধ্যায় নামে। তাঁর সম্পর্কে জানতে পড়ুন https://sobbanglay.com/sob/manik-bandopadhyay
  • আজ ভারতের প্রথম রাষ্ট্রপতি রাজেন্দ্র প্রসাদের জন্মদিনে তাঁর সম্পর্কে জানতে পড়ুন https://sobbanglay.com/sob/rajendra-prasad/
  • আজ বিষ্ণু দে-এর মৃত্যুদিন। তিনি ছিলেন একজন বিখ্যাত বাঙালি কবি, লেখক এবং চলচ্চিত্র সমালোচক। ১৯২৩ সালে কল্লোল পত্রিকা প্রকাশের মাধ্যমে যে সাহিত্য আন্দোলনের সূচনা হয়েছিল কবি বিষ্ণু দে তার একজন দিশারী। তাঁর সম্পর্কে জানতে পড়ুন https://sobbanglay.com/sob/bishnu-dey/
  • আজ ধ্যান চাঁদের মৃত্যুদিন। তিনি ছিলেন ভারতীয় হকির জাদুকর। তার আসল নাম ধ্যান সিং,খেলার প্রতি আনুগত্য এবং কঠিন পরিশ্রম দেখে সতীর্থরা তাঁর নাম দেন ‘ধ্যান চাঁদ’। তাঁর সম্পর্কে জানতে পড়ুন https://sobbanglay.com/sob/dhyan-chand/
  • আজ আচার্য ব্রজেন্দ্রনাথ শীলের মৃত্যুদিন। কখনো গণিত নিয়ে গবেষণা, কখনো দর্শন নিয়ে; আবার কখনো ভূতত্ত্ব, জীববিদ্যা এমনকি নৃতত্ত্বের চর্চাতেও তিনি ছিলেন সেকালের ভারতে এক উজ্জ্বলতম মনীষী যাকে অনেকে সক্রেটিসের যোগ্য উত্তরসূরি বলতেন। চলন্ত বিশ্বকোষ নামে পরিচিত অসীম প্রজ্ঞাবান ব্রজেন্দ্রনাথ শীল সম্পর্কে আরো বিশদে জানতে পড়ুন এখানে https://sobbanglay.com/sob/brajendra-nath-seal/
  • আজ ধরমপাল গুলাতির মৃত্যুদিন তিনি একজন ভারতীয় ব্যবসায়ী যিনি এম.ডি.এইচ (MDH) মশলার প্রতিষ্ঠাতা এবং সি ই ও ছিলেন। চটজলদি মশলা নির্মানে অগ্রণী ভূমিকার জন্য তাঁকে ‘মশলার রাজা’ নামে অভিহিত করা হয়ে থাকে। তাঁর সম্পর্কে জানতে পড়ুন এখানে https://sobbanglay.com/sob/dharampal-gulati/
  • আজ ১৯৫৮ সালের চলচ্চিত্র ‘কালাপানি’-তে একটি কালো কোট পরে দেব আনন্দকে অসম্ভব আবেদনপূর্ণ ভঙ্গিতে দেখে এক কিশোরী আত্মহত্যা করে বসে। হিন্দুস্তান টাইমস পত্রিকার বর্ণনায় এই ঘটনা প্রকাশ পাওয়ার পর প্রকাশ্য সমাবেশে আর কোনোদিনই দেব আনন্দ কালো কোট পরেননি। ভারতীয় দর্শকদের মধ্যে তাঁর এতটাই জনপ্রিয়তা এবং প্রভাব ছিল। দীর্ঘ ৬৫ বছরের জীবনে প্রায় ৯২টিরও বেশি ছবিতে অভিনয় করেছেন তিনি। ৩৫টি ছবি প্রযোজনা করেছেন আর ১৯টি ছবিতে পরিচালনাও করেছেন। ‘গাইড’, ‘প্রেম পূজারি’, ‘হাম দোনো’, ‘বানারসি বাবু’, ‘জুয়েল থিফ’, ‘তেরে মেরে সপ্‌নে’ ইত্যাদি দেব আনন্দ অভিনীত বহু ছবি পঞ্চাশ দশক থেকে ষাটের দশকে দর্শক আনুকূল্য পেয়েছিল। আজও তিনি ভারতীয় চলচ্চিত্র দুনিয়ার অন্যতম কিংবদন্তী অভিনেতা। তাঁর জীবন সম্পর্কে জানতে পড়ুন এখানে https://sobbanglay.com/sob/dev-anand/

বিশেষ আকর্ষণীয় কন্টেন্টঃ

  • ১৯১৪ সালে ফিফা অলিম্পিক প্রতিযোগিতায় ফুটবলকে “অপেশাদার বিশ্ব ফুটবল চ্যাম্পিয়নশিপ” হিসেবে স্বীকৃতি দেয়। ১৯৩০ সালের আগে ফুটবলের সবচেয়ে বড় প্রতিযোগিতা হিসাবে একমাত্র অলিম্পিকই ছিল। ১৯২৮ সালে তৎকালীন ফিফা প্রেসিডেন্ট জুলে রিমে ফুটবলকে অলিম্পিক থেকে আলাদা করে ফুটবলের নিজস্ব প্রতিযোগিতা হিসাবে ঘোষণা  করেন। বিস্তারিত জানতে পড়ুন এখানে https://sobbanglay.com/sob/first-fifa-worldcup/
  • ফুটবল বিশ্বকাপের দ্বিতীয় আসর এখানে https://sobbanglay.com/sob/fifa-worldcup-1934/

আজ কী দেখবেনঃ

ঐতিহাসিক গুরুত্বপূর্ণ ঘটনাঃ

আজ স্বাধীনতা সংগ্রামী এবং অগ্নিযুগের বিপ্লবী শহীদ ক্ষুদিরাম বসুর জন্মদিন। মাত্র ১৮ বছর বয়সে হাসতে হাসতে ফাঁসির মঞ্চে জীবন উৎসর্গ করেছিলেন তিনি। তাঁর উকিল কালিদাস বসু তাঁর ফাঁসির যে চাক্ষুস বর্ণনা দিয়েছিলেন, সেই বর্ণনা শুনুন এই ভিডিওতে।

বিশেষ আকর্ষণীয় ভিডিওঃ

তৎকালীন রাষ্ট্রপতি ডক্টর রাজেন্দ্র প্রসাদের হাতে সোমনাথ মন্দিরের বর্তমান রূপটির ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপিত হয়। মন্দির উদ্বোধনে তিনি বলেন, “ধ্বংসের চেয়ে যে সৃষ্টি যে মহৎ, সোমনাথ মন্দির তারই প্রতীক।” এই মন্দির নিয়ে বিস্তারিত দেখুন এই ভিডিওতে।

প্রতি চার বছর অন্তর বিশ্বকাপ ফুটবল আসে আর একশ কোটির বেশি জনসংখ্যা নিয়ে ভারতীয়রা আক্ষেপ করে বিশ্বকাপ ফুটবলে ভারত অংশ নিতে না পারার জন্যে। ফুটবলপ্রেমী ভারতীয়রা গলা ফাটায় ব্রাজিল, আর্জেন্টিনা ইত্যাদি বিভিন্ন দেশের হয়ে। অথচ ফিফা বিশ্বকাপ ১৯৫০ এর আসরে অংশ নেওয়ার সুযোগ পেয়ে সেটা কাজে লাগালে হয়ত ইতিহাস অন্যরকম হত, অন্তত একবার হলেও বিশ্ব ফুটবল মঞ্চে নিজেদের তুলে ধরার সুযোগ পেত ভারতীয় ফুটবলাররা। সঙ্গে একশ কোটি ভারতীয়ের বিশ্বকাপ ফুটবলে একবারও খেলতে না পারার আক্ষেপ কিছুটা মিটত। ১৯৫০ সালের বিশ্বকাপ ফুটবলে ভারত অংশ নেয়নি কেন এই নিয়ে বিস্তারিত জানতে দেখুন এই ভিডিওটি।


অন্যান্য আরও যা পড়বেনঃ

  • ডিসেম্বর মাসের প্রতিদিনের যাবতীয় ঐতিহাসিক বা বিশেষ ঘটনা এক নজরে পড়ুন এখানে https://sobbanglay.com/tag/december/
  • ডিসেম্বর মাসে ঐতিহাসিক বা মহান যে সমস্ত মানুষেরা জন্ম নিয়েছেন তাদের এক নজরে পেতে দেখুন এখানে https://sobbanglay.com/tag/december-born/
  • ডিসেম্বর মাসে ঐতিহাসিক বা মহান যে সমস্ত মানুষেরা মারা গিয়েছেন তাদের এক নজরে পেতে দেখুন এখানে https://sobbanglay.com/tag/december-death/
  • ভারতীয় পালনীয় দিবসগুলোকে একসাথে তালিকাভুক্ত করা হল এখানে https://sobbanglay.com/sob/india-national-days
  • আন্তর্জাতিক পালনীয় দিবসগুলোকে একসাথে তালিকাভুক্ত করা হল এখানে https://sobbanglay.com/sob/international-days/

তথ্যমূলক কন্টেন্টের পাশাপাশি আপনার অবসর সময়ে পড়তে পারেন বিভিন্ন লেখকের কলমে অসাধারণ কিছু গল্প, কবিতা, প্রবন্ধ বা রম্যরচনা এখানে – https://lekhalikhi.sobbanglay.com/

লেখকদের নিজেদের কণ্ঠে তাঁদের লেখার আবৃত্তি বা অডিও স্টোরি শুনতে দেখুন এখানে https://youtube.com/lekhalikhi

তথ্যসূত্র


  1. নিজস্ব সংকলন

আপনার মতামত জানান