শিল্প-সাহিত্য

পাততাড়ি গোটানো

দৈনন্দিন জীবনে 'পাততাড়ি গোটানো' বাংলা প্রবাদটি আমরা প্রায়ই বলে থাকি। পাততাড়ি গোটানো-র অর্থ হল পালিয়ে যাওয়া বা চম্পট দেওয়া কিংবা কাজ সেরে চলে যাওয়াকে বোঝায়৷

এবার জেনে নেওয়া যাক কোথা থেকে এল এই প্রবাদটি; অনেক আগেকার কথা আমাদের দেশে গ্রাম গঞ্জে বালকেরা পাঠশালা যেত তারা সঙ্গে করে নিয়ে যেত হাতে বানানো কালি, কঞ্চির কলম, চাটাই। তালপাতা কিংবা কলাপাতায় তখন লেখার প্রচলন ছিল৷ দলবদ্ধভাবে তখন সকলে গুরুগৃহে যেত পড়তে৷ এই গুরুগৃহে যাওয়া থেকেই প্রবাদটির সূত্রপাত। " পাত " বলতে পাতাকেই বোঝায় সেটা তালপাতা, কলাপাতা বা ভূর্জপত্র, যার উপর শিক্ষার্থীরা লিখত। 'তাড়' শব্দটির অর্থ তালগাছ । 'তাড়ি' অর্থে গোছা বা তাড়া বলা চলে। আবার তাড়ি বলতে তাল বা খেজুরের রস দিয়ে তৈরী মাদক দ্রব্যও কেও বলা হয়। এই ক্ষেত্রে আমরা প্রথম অর্থটিই ধরব। গুরুগৃহে লেখাপড়া শেষ হলে ছাত্র ছাত্রী রা পাততাড়ি গুটিয়ে বাড়ি ফিরত। সেখান থেকেই প্রবাদটির জন্ম। কোনকাজ সম্পন্ন হলে সমস্ত কিছু গুছিয়ে রহনা দেওয়াকে পাততাড়ি গোটানো বলা হয়ে থাকে৷

দুটি উদাহরণ দেওয়া যেতে পারে,

১. একমাস যাবত মেলা চলার পর গাজনের মাঠ কাল থেকে ফাঁকা হয়ে যাবে আজই ওরা পাততাড়ি গুছিয়ে নিচ্ছে। ( কাজ গুছিয়ে চলে যাওয়া অর্থে)

২. ধারের টাকা শোধ না দিয়ে গতকাল রাতের অন্ধকারে মল্লিক বাবু পাততাড়ি গুটিয়েছে। ( চম্পট দেওয়া অর্থে)

তথ্যসূত্র


  1. প্রবাদের উৎস সন্ধান - সমর পাল, শোভা প্রকাশ / ঢাকা ; ৯৯ পৃঃ

Click to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

To Top

 পোস্টটি ভালো লাগলে শেয়ার করে সকলকে পড়ার সুযোগ করে দিন।  

error: Content is protected !!