কবিতা

সুখ

কবিঃ পর্ণা সেনগুপ্ত

সুখ ….
আমি তো জানিনা
সুখ
কোন বৃক্ষের ফল;
একটি একটি করে দিন যায়
একটি একটি করে
সোনালী পালক, হাওয়ায়
খসিয়ে দিই আমি,
স্বপ্নের অলিন্দ থেকে
একটি একটি করে
নিভে যায় দীপ,
রাত্রির অবয়বে
নিষ্প্রদীপ সৌধের দিকে
অসহায় চেয়ে থাকা,
দুঃখগুলো যেন সুখের ঝর্ণা  
সুখগুলো দুঃখের নদী,
মেঘে মেঘে চলে তরঙ্গের খেলা,
প্লাবিত আঁখি পল্লব থেকে
উৎসারিত ধারা,
যেন সহস্র নদীর স্রোত,
জীবন- মৃত্যুর অন্তহীন দ্বৈরথে
কোনো নিয়ম কেন নেই ?
কেন সেই অমোঘ রেফারি
যখন খুশি বাজিয়ে দেয়
তার শেষ বাঁশি।

বি.দ্র. : লেখালিখি ওয়েবসাইট লেখকদের ভাবনা প্রকাশের একটি প্ল্যাটফর্ম। লেখার বিষয়বস্তু ও অভিমত লেখকের ব্যক্তিগত – এর কোনো দায় আমাদের নেই।

লেখক পরিচিতিঃ পর্ণা সেনগুপ্ত


পর্ণা সেনগুপ্তের জন্ম পশ্চিমবঙ্গ-ঝাড়খন্ড মধ্যবর্তী এক ছোট মফঃস্বল -এ। বর্তমানে তিনি পুনে নিবাসী। কর্মসূত্রে একটি স্কুলের শিক্ষিকা। সাংস্কৃতিক পরিমণ্ডলে তার বড় হওয়া তাই সংস্কৃতি অনুরাগী পর্ণার কাছে সংস্কৃতির প্রতিটি রূপ-বিন্যাস সমানভাবে সমাদৃত। দেশীয়-আন্তর্জাতিক বিভিন্ন বাংলা পত্র-পত্রিকায় তাঁর লেখা প্রকাশ পায়। কাজের ব্যস্ততার মাঝে বিভিন্ন সাস্কৃতিক অনুষ্ঠানে কখনও আবৃত্তিকার, গ্রন্থিক বা অনুষ্ঠান সঞ্চালিকা রূপে, কখনও গায়িকা বা নাট্য- জগতে শিল্পী হিসাবে অংশ গ্রহণ করেন।
Click to comment

Leave a Reply

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

To Top
error: লেখা নয়, লিঙ্কটি কপি করে শেয়ার করুন।