বিজ্ঞান

আমাদের শরীরে তিল তৈরি হয় কিভাবে

আমাদের দেহের চামড়ায় বাদামি বা কালো রঙের  ছোট ছোট দাগ থাকে যাকে আমরা তিল বলি। সাধরণত মানুষের দেহে ১০ থেকে ৪০ টি পর্যন্ত তিল বা আঁচিল থাকে। শরীরের কোন অংশে তিল থাকলে কী হয় সেসব নিয়ে বিভিন্ন সংস্কৃতিতে বিভিন্ন কুসংস্কারের প্রচলন আছে – যার কোন বিজ্ঞানসম্মত ব্যাখ্যা নেই।তবে তিল তৈরি হয় কিভাবে তার একটা ব্যাখ্যা দেওয়ার চেষ্টা করেছেন বৈজ্ঞানিকেরা।

আমাদের চামড়ার একদম উপরের স্তরকে বলে এপিডারমিস (epidermis)। এই এপিডারমিসের তলার দিকে মেলানোসাইটস (melanocytes) নামক কোষগুলি থাকে যেগুলি আমাদের দেহে মেলানিন তৈরি করে। এই মেলানিনের পরিমাণের তারতম্যের ফলেই আমাদের চামড়ার রঙ বিভিন্ন হয় – এ বিষয়ে বিশদে পড়তে এখানে ক্লিক করুন। মেলানোসাইটস কোষগুলি সাধারণত আমাদের দেহে সমানভাবে ছড়ানো থাকে। কিন্তু কখনো কখনো অনেকগুলি মেলানোসাইটস এক জায়গায় জড় হয়ে গুচ্ছবদ্ধ (cluster) হয়ে যায় ফলত সেই অংশে অধিক মেলানিন তৈরি হয় যার ফলে সে সব অংশের রঙ সাধারণত গাঢ় হয় এবং ছোট ছোট কালো বা বাদামি বর্ণের তিল তৈরি হয়।কিছু প্রকারের তিল বংশগতও হয়ে থাকে।

তিল সাধারণত কম বয়সেই তৈরি হয়। তিল দেহের যেকোন অংশে হতে পারে, তবে যে অংশে সূর্যালোক বেশি পড়ে সেখানে হওয়ার সম্ভবনা বেশি। সাধারণভাবে তিল স্বাস্থ্যের পক্ষে ক্ষতিকর নয়। তবে কোনো কোনো তিলকে স্কিন ক্যান্সার রোগের বা মেলানোমা (melanoma) উপসর্গ হিসেবে ধরা হয় – এই জন্যে তিলের আকার আয়তনের হঠাৎ পরিবর্তন শুরু হলে চিকিতসকের পরামর্শ নেওয়া উচিত।

Click to comment

Leave a Reply

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

To Top
error: লেখা নয়, লিঙ্কটি কপি করে শেয়ার করুন।

বাংলাভাষায় তথ্যের চর্চা ও তার প্রসারের জন্য আমাদের ফেসবুক পেজটি লাইক করুন