ইতিহাস

নতুন বছরে 'নিউ ইয়ার রেজোলিউশনের' রীতি এল কিভাবে

নতুন বছর শুরু মানেই নিউ ইয়ার্স রেজোলিউশনের হিড়িক শুরু। পুরোনো বছরের যা কিছু ভুল ভ্রান্তি নতুন বছরে তা শুধরে নেওয়ার শপথ।কিন্তু কবে থেকে শুরু হল শপথ নেওয়ার এই রীতি নতুন বছরে?

নতুন বছরে শপথ নেওয়ার এই রীতি কিন্তু আজকের যুগের ফ্যাশন নয়। এটি শুরু হয়েছিল আজ থেকে চার হাজার বছর আগে ব্যবিলনীয়দের হাত ধরে। বিশ্বে তারাই প্রথম যাদের নববর্ষ পালনের ঐতিহাসিক সাক্ষ্য পাওয়া যায়।ব্যবিলনীয়দের নববর্ষ শুরু হত মার্চ মাসের মাঝের দিকে যখন নতুন ফসল বোনা হত।বারো দিন ব্যাপী এই ধর্মীয় উৎসবের নাম-আকিতু।এই উৎসবে তারা নির্বাচিত নতুন রাজার রাজ্যাভিষেক করত এবং তার কাছে সারা বছর আনুগত্যের শপথ নিত।এছাড়াও তারা ঈশ্বরের কাছে শপথ নিত ধার বাকি যা আছে সব নতুন বছরে শোধ করে দেওয়ার।

ঠিক একইরকম রীতি প্রচলন ছিল প্রাচীন রোমানদের মধ্যেও। জানুয়ারি মাসটি রোমানদের কাছে বিশেষ তাৎপর্যপূর্ণ। রোমান সম্রাট জুলিয়াস সিজার রোমান দেবী জানুস যার দুটি মাথা দুদিকে রয়েছে,  যে দেবীর আত্মা দরজার মুখে বাস করে তার নামে জানুয়ারি মাসটির নামকরণ করেন।দেবী জানুসের একটি মাথা পিছন দিকে তাকিয়ে থাকে যার অর্থ বিগত বছরের স্মৃতিচারণ, আরেকটি সামনের দিকে যার অর্থ আগামী বছরের প্রতি প্রত্যাশা। প্রাচীন রোমানরা এই দেবীর কাছে শপথ নিত আগত বছরে তাদের ব্যবহার যেন ভাল হয় বিগত বছরের তুলনায়।

মিশরীয়দের মধ্যেও নতুন বর্ষে শপথ নেওয়ার এই রীতি প্রচলিত ছিল। মিশরীয়রা নীলনদের দেবী, হাপি'র কাছে মিশরীয় নববর্ষের (জুলাই মাস নাগাদ) শুরুতে শপথ গ্রহণ করে উৎসব পালন করত। নীলনদে এই সময় বন্যা দেখা দিত যা ঊষর মিশরে ফসল ফলানোর উপযুক্ত পরিবেশ তৈরি করে দিত। এই শপথ গ্রহণের ও বলিদানের সাথে সাথে মিশরীয় দেবীর কাছে সৌভাগ্য, সম্পদ ও ফসলের প্রার্থনা করত।

প্যাগানদের এই রীতি খ্রিস্টানদের বিরক্ত করে তোলে। তারা ঠিক করে প্যাগানদের মত তারা বর্ষবরণ করবে না।তারা ঠিক করে ধর্মীয় উৎসব যেমন- ক্রিসমাস বা ফিস্ট অব আ্যনানসিয়েশন -এর সময় শপথ গ্রহণ করবে। শপথের বিষয়ও পরিবর্তিত হয়ে যায়। ধর্মীয় মূল্যবোধ বিষয় হয়ে ওঠে। মধ্যযুগে ক্রিসমাসের শেষে নাইটরা 'ময়ূর শপথ'(The vow of the peacock) গ্রহণ করত ময়ূরের গায়ে হাত রেখে। নৈতিক শপথের এই রীতিই চলে আসছে সেই থেকে।

১৮১৩ সালে Boston-এর এক সংবাদপত্রে সর্বপ্রথম 'New year Resolution' বাগধারাটি দেখা যায়। সময় যত এগিয়েছে দেখা গেছে নৈতিক এই শপথ ক্রমেই তার গুরুত্ব হারিয়েছে।একটি সমীক্ষার মতে সারা বিশ্বে প্রতিবছর যত মানুষ নিউ ইয়ার রেজোলিউশন নেয় তার ১০ শতাংশ মাত্র সারা বছর তা পালন করতে পারে।

Click to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

To Top

 পোস্টটি ভালো লাগলে শেয়ার করে সকলকে পড়ার সুযোগ করে দিন।  

error: Content is protected !!