ধর্ম

ব্যাসের জন্মকথা

মহাভারতের রচয়িতা ব্যাসদেব, জন্মেছিলেন সত্যবতীর গর্ভে, শান্তনু রাজার  সাথে তার বিবাহের আগেই। ব্যাসদেবের পিতা ছিলেন পরাশর মুনি। কিভাবে পরাশর মুনির সাথে আলাপ হল সত্যবতীর এবং কিভাবে তার গর্ভে এল ব্যাসদেব, সেটা আলোচনা করব।

মাছের পেটে জন্মানোর ফলেই হোক, বা মৎসজীবি হওয়ার ফলেই হোক, সত্যবতীর গায়ে ছিল মাছের মত গন্ধ। অনেকে তো তাঁকে মৎসগন্ধা বলেও ডাকত। কিন্তু রূপে সে ছিল অতুলনীয়া, মুনিঋষিদের মনও তাঁকে দেখে অন্যপথে চলে যেত। সেইরকমই একজন মহামুনি, যার নাম ছিল পরাশর, একদিন সত্যবতীর নৌকায় চড়েছিল। নৌকায় যেতে যেতে সে সত্যবতীকে তাঁর জন্মকথা শোনাতে লাগল, কারণ সত্যবতী তখনও অবধি নিজেকে জেলের মেয়ে বলেই জানত। সে বেশ মন দিয়ে পরাশরমুনির কথা শুনতে লাগল, বেশ ভাল লাগছিল তাঁর। নৌকা যখন মাঝনদীতে, তখন কাহিনী তো শেষ হয়ে গেল, কিন্তু পরাশর মুনি একটা দাবী করলেন তাঁর কাছে। সত্যবতীর সাথে মিলন করতে চাইলেন তিনি। সত্যবতীর লজ্জা পেল, মুখে বলল, “দুইপাড়েই কত লোক আছে। এরম অবস্থায় এখানে আপনার সাথে মিলন কি করে সম্ভব?”
পরাশরমুনি বুঝলেন সত্যবতীর মিলনে আপত্তি নেই। তিনি তাঁর তপস্যার প্রভাবে জায়গাটা কুয়াশায় ঢেকে দিলেন। তারপর এগিয়ে এলেন সত্যবতীর কাছে। সত্যবতী তখন বললেন, “কিন্তু আমার ভয় করছে! আমি তো কুমারী। বাবা জানলে কি হবে?”
পরাশর তখন বললেন, “চিন্তা নেই কোনও।  আমার সাথে মিলনের পরও তুমি কুমারীই থাকবে। আমি বর দিচ্ছি তোমায়! আর তাছাড়া মিলনের পরে তোমার এই মাছের গন্ধও দূর হবে। বদলে আসবে ফুলের গন্ধ।”

এরপর তাঁদের মিলন হল। সত্যবতীর গায়ে এল ফুলের গন্ধ, যে গন্ধে রাজা শান্তনু মোহিত হয়েছিলেন, আর গর্ভে এল ব্যাসদেব। মহাভারতের রচয়িতা ব্যাসদেব। সত্যবতী তখনই প্রসব করলেন তাঁকে। আর জন্মের পরই পরাশর মুনি তাঁকে নিয়ে চলে গেলেন। যাবার সময় ব্যাসদেব  সত্যবতীকে কথা দিয়ে গেলেন যখনই সত্যবতী তাকে স্মরণ করবেন, তিনি চলে আসবেন।

স্বরচিত রচনা পাঠ প্রতিযোগিতা, আপনার রচনা পড়ুন আপনার মতো করে।

ভিডিও

বিশদে জানতে ছবিতে ক্লিক করুন। আমাদের সাইটে বিজ্ঞাপন দেওয়ার জন্য যোগাযোগ করুন। ইমেল – contact@sobbanglay.com

 


তথ্যসূত্র


  1.  "মহাভারতের একশোটি দুর্লভ মুহূর্ত", আনন্দ পাবলিশার্স, পঞ্চম মুদ্রণ - ধীরেশচন্দ্র ভট্টাচার্য, অধ্যায়-০৯ ব্যাসদেবের জন্ম, পৃষ্ঠাঃ ৫৩-৫৬
  2.  "মহাভারত সারানুবাদ", দেবালয় লাইব্রেরী(প্রকাশক সৌরভ দে, তৃতীয় প্রকাশ) - রাজশেখর বসু, আদিপর্ব পৃষ্ঠাঃ ৪১

 
১ Comment

1 Comment

  1. Pingback: ধৃতরাষ্ট্র, পাণ্ডু ও বিদুরের জন্ম | সববাংলায়

Leave a Reply

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

To Top
error: লেখা নয়, লিঙ্কটি কপি করে শেয়ার করুন।