ভূগোল

সৌদি আরব

সৌদি আরব

সৌদি আরব

রুক্ষ মরুভূমির মাঝে প্রাণ হল সৌদি আরব (Saudi Arabia)৷ পূণ্য স্থান মক্কা মদিনার জন্য এর নাম সকলের কাছে বহুল পরিচিত। এখানে আছে খনিজ সম্পদের ভান্ডার।

এশিয়া মহাদেশের একটি অন্যতম দেশ হল সৌদি আরব৷ আয়তনের দিক দিয়ে আরবদেশগুলির মধ্যে এশিয়ার বৃহত্তম দেশ এইটি এবং আলজিরিয়ার পর আরব বিশ্বে এর স্থান দ্বিতীয়৷ উত্তরে জর্দান ও ইরাক, পূর্ব দিকে কাতার, বাহরাইন ও সংযুক্ত আরব আমিরাত অবস্থিত এবং দক্ষিনে ইয়েমেন ঘিরে রয়েছে সমগ্র দেশটিকে। উত্তরপূর্বে কুয়েত ও দক্ষিনপুর্বে ওমান অবস্থান করছে।

রিয়াদ সৌদি আরবের রাজধানী ।আরবি ভাষায় রিয়াদের অর্থ বাগানসমূহ। বহু আগে আরব উপদ্বীপে হজযাত্রীদের জন্য একটা প্রাক্তণ ব্যবসা কেন্দ্র হিসেবে রিয়াদ প্রতিষ্ঠিত ছিল৷ বর্তমানে রিয়াদ অধুনিক স্থাপত্য ও শহুরে সভ্যতার ব্যস্ত মহানগরী । সিটিজ কিং সৌদ ও ইমাম মোহাম্মদ বিন সৌদ ইসলামিক বিশ্ববিদ্যালয় নামক দুই বিশ্ববিদ্যালয় এখানে আছে৷ রিয়াদ শহরে আছে তথ্য, সাংস্কৃতিক তথ্য এবং সাংস্কৃতিক কেন্দ্র, খেলাধুলার সুযোগ ও স্টেডিয়াম, পাঠাগার কেন্দ্র এবং জন পাঠাগার, যা সকল দিক দিয়ে জনগনকে সমৃদ্ধ করেছে। দিরা স্কোয়ার, মাসমাক দুর্গ, প্রত্নতাত্ত্বিক ও নৃ-তত্ত্ব যাদুঘর এখানকার দর্শনীয় স্থান৷
২০১৭ সালের পরিসংখ্যান অনুযায়ী জনসংখ্যার বিচারে সৌদি আরব বিশ্বে ৪০ তম জনবহুল দেশ।

সৌদি আরব ম্যাপ

সৌদি আরব ম্যাপ

এখানকার মুদ্রার নাম রিয়াল। সৌদি আরবের রাষ্ট্রীয় ভাষা হল আরবি৷

এখানে ইসলাম ধর্ম স্বীকৃত। সৌদি আরব রাজতান্ত্রিক দেশ। এখানে রাজা ইসলামী আইন ও কোরান মেনে শাসন করতে হয়৷ আর কোরানই এখানকার সংবিধান।

সৌদি আরবে বেশ কিছু উল্লেখযোগ্য ভ্রমণ স্থান রয়েছে তার মধ্যে উল্লেখযোগ্য হল, মাডেইন সালেহ , অপরূপ সৌন্দর্য ভরা এই শহরে বেশ কিছু ইতিহাসের সাক্ষর রয়েছে৷ গোলাপ ও গোলাপ জলের জন্য বিখ্যাত শহর হল তায়েফ, এছাড়া আল সাউথ, ফারাসান দ্বীপ, নাজরেইন উল্লেখযোগ্য। সবথেকে উল্লেখ্য স্থান হল মক্কা ও মদিনা। মক্কার পবিত্র ভূমি হজযাত্রী মাত্রেই পূণ্যস্থান৷

সৌদি আরবের মানুষদের প্রিয় খাদ্য পনীর ও জয়তুন। সৌদি আরবের মিষ্টি খাবারগুলোর মধ্যে আছে বাসবোসা, বাখলাভা, কুনাফা, মায়ামোল, হালওয়া, বামিয়েহ, মুহালবিয়া ও কাতায়েফ। বাসবোসা হলো কাজু বাদাম ও সুজি দিয়ে তৈরী একপ্রকার কেক। কুনাফা হল পনির দিয়ে বিশেষভাবে তৈরি একধরনের মিষ্টি বিশেষ। মায়ামোল, হালুয়া, বামিয়েহ, মুহালবিয়া হচ্ছে দুধের পুডিং আর কাতায়েফ হচ্ছে মাখন ও পনীর দিয়ে তৈরি কেক।

খনিজ সম্পদ সৌদি আরবে প্রচুর পরিমানে আছে, বিশ্বে তৃতীয় স্থান অধিকার করে। পেট্রোল, খনিজ তেল ও গ্যাস এখানকার প্রধান সম্পদ।

Click to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

To Top

 পোস্টটি ভালো লাগলে শেয়ার করে সকলকে পড়ার সুযোগ করে দিন।  

error: Content is protected !!