ইতিহাস

৯ই অগাস্ট ।। নাগাসাকি দিবস

হিরোশিমা এবং নাগাসাকি এই নাম দুটো শুনলেই আমাদের চোখের সামনে ভেসে ওঠে পারমাণবিক বোমার আঘাতে গুঁড়িয়ে যাওয়া জাপানের দুটি শহরের ছবি। প্রথম বিশ্বযুদ্ধের একেবারে শেষ লগ্নে ১৯৪৫ সালের ৯ই অগাস্ট জাপানের নাগাসাকিতে (Nagasaki) আমেরিকা যুক্তরাষ্ট্র বিশ্বের দ্বিতীয় পারমানবিক বোমাটি নিক্ষেপ করে।

জাপানের রাজধানী টোকিও থেকে প্রায় ১২০০ কিমি দূরে অবস্থিত নাগাসাকি শহরটি। ১৯৪৫ এর ৯ই অগাস্ট বেলা ১১.০২ মিনিটে মাটি থেকে ১৬৫০ ফুট ওপরে বিস্ফারিত হয় ৫ কেজি ওজনের প্লুটোনিয়াম বোমা- ‘ ফ্যাট ম্যান’। যে বিমান থেকে এটি ফেলা হয় তার নাম- বি-২৯এস । বিস্ফোরণের সাথে সাথেই প্রায় ৩৫-৪০ হাজার মানুষের মৃত্যু হয়। আহত হয় আরও অন্তত ৬০ হাজার।পরবর্তীকালে বিস্ফোরণের পার্শ্বপ্রতিক্রিয়ায় আরও অন্তত ৬০ হাজার মানুষের মৃত্যু হয়।

প্রাথমিকভাবে স্থির করা ছিল জাপানের কোকুরা’তে ফেলা হবে ফ্যাটম্যান বোমাটি। প্লুটোনিয়াম বোমা ফ্যাটম্যান’কে বহন করছিল যে বিমানটি, সেটি কোকুরা’র উপর ওড়াকালীন দেখতে পায় শহরের ওপর ঘন মেঘ জমে আছে।  বিমানে জ্বালানি তেল যা ছিল তাও শেষের মুখে। সুতরাং  দ্বিতীয় লক্ষ্য নাগাসাকিতে বোমাটি ফেলে বিমানটি ফিরে আসে । তবে পরিকল্পিত স্থানে বোমাটি নিক্ষেপ করা সম্ভব হয়নি। ফ্যাটম্যান বিস্ফোরিত হয় একটি উপত্যকার উপর।হিরোশিমার  মতো এক্ষেত্রে অগ্নিঝড় হয়নি কিন্তু এতেই তৎক্ষণাৎ নিহত হন ৩৫-৪০ হাজার মানুষ।

প্রতি বছর ওই ঘটনাকে স্মরণ করে পারমাণবিক শক্তির ওপর নির্ভরতা কমানোর অঙ্গীকার নিয়ে  বিশ্বব্যাপী পালিত হয় নাগাসাকি দিবস(Nagasaki-day)।

Click to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.

To Top
error: Content is protected !!