আজকের দিনে

২২ ডিসেম্বর ।। জাতীয় গণিত দিবস

প্রতি বছর প্রতি মাসের নির্দিষ্ট কিছু দিনে বিভিন্ন দেশেই কিছু দিবস পালিত হয়। ঐ নির্দিষ্ট দিনে অতীতের কোন গুরুত্বপূর্ণ ঘটনাকে স্মরণ করা বা  গুরুত্বপূর্ণ বিষয়ে জনসচেতনতা তৈরী করতেই এই সমস্ত দিবস পালিত হয়। ভারতবর্ষও তার ব্যতিক্রম নয়। ভারতবর্ষের পালনীয় সেই সমস্ত দিবসগুলোর মধ্যেই একটি হল জাতীয় গণিত দিবস (National Mathematics Day)। 

প্রতি বছর ২২ ডিসেম্বর সারা ভারত জুড়ে জাতীয় গণিত দিবস পালিত হয় ভারতের প্রতিভাবান গণিতজ্ঞ শ্রীনিবাস রামানুজনের জন্মদিবস উপলক্ষে। এই দিবস উদযাপনের মধ্যদিয়ে গণিতের বিকাশের ধারাটিকে সকলের সামনে তুলে ধরা হয়ে থাকে৷ 

২০১২ সালের ২৬ ফেব্রুয়ারি ভারতের তৎকালীন প্রধানমন্ত্রী মনমোহন সিং মাদ্রাজ বিশ্ববিদ্যালয়ে শ্রীনীবাস রামানুজনের ১২৫ তম জন্মবার্ষিকী উদযাপনের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে ঘোষণা করেছিলেন যে ২০১২ সালটি জাতীয় গণিত বছর হিসাবে পালিত হবে। তারপর থেকেই ২২ ডিসেম্বর দিনটিকে জাতীয় গণিত দিবস হিসেবে পালন করা হয়ে থাকে৷ শ্রীনিবাস রামানুজন ছিলেন অসামান্য প্রতিভাবান একজন ভারতীয় গণিতবিদ। প্রথাগত শিক্ষায় তিনি শিক্ষিত ছিলেন না৷ কলেজে পড়াকালীন অ-গণিত বিষয়গুলিতে তিনি অকৃতকার্য পড়া ছেড়ে দেন। এরপর কয়েক বছর তিনি নিজের মতন করে গণিত বিষয়ে অধ্যয়ন ও গবেষণা চালিয়ে যান। পরিশ্রম ও কঠোর মেধার দ্বারা নিজের প্রচেষ্টায় তিনি গণিতের বিভিন্ন শাখায়, বিশেষ করে গাণিতিক বিশ্লেষণ, সংখ্যাতত্ত্ব, অসীম ধারা ও আবৃত্ত ভগ্নাংশ শাখায়, গুরুত্বপূর্ণ অবদান রেখে গেছেন। এছাড়া রামানুজন অনেক গাণিতিক সূত্রের উদ্ভাবনও করেন। রামানুজন ছিলেন প্রথম ভারতীয় যিনি কেমব্রিজ এর আমন্ত্রণে বিদেশে আসার অল্পদিন পরই ট্রিনিটি কলেজের ফেলোশিপ অর্জন করেন।  

বর্তমান সময়ে ভারতের বিভিন্ন স্কুল এবং বিশ্ববিদ্যালয়গুলিতে গণিতের প্রতি রামানুজনের অবদান নিয়ে বিভিন্ন রকমের সেমিনার, আলোচনাসভা ইত্যাদি অনুষ্ঠানের মাধ্যমে এই দিনটি পালন করা হয়ে থাকে। দেশের বিভিন্ন জায়গা থেকে বিশেষজ্ঞদের এনেও লেকচারের ব্যবস্থা করে উচ্চ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলি। পাশাপাশি পড়ুয়াদের মধ্যে নানা প্রতিযোগিতাও আয়োজন করে থাকে অনেক শিক্ষা প্রতিষ্ঠান যেমন গণিতের উপর ক্যুইজ, পোস্টার তৈরি ইত্যদি। নাসি তথা ন্যাশনাল একাডেমি অফ সায়েন্স ইন্ডিয়া (NASI, The National Academy of Science India) এলাহাবাদে অবস্থিত প্রাচীনতম বিজ্ঞান একাডেমি জাতীয় গণিত দিবস উদযাপন করতে গণিত ও রামানুজনের জীবনের ওপর একটি কর্মশালা পরিচালনা করে থাকে এই দিন। ২০১৭ সালে অন্ধ্রপ্রদেশের চিত্তুরের কুপ্পাম-এ রামানুজন ম্যাথ পার্ক (Ramanujan Math Park) উদ্বোধনের মাধ্যমে দিনটিকে আরও তাৎপর্যপূর্ণ করে তুলেছে৷ 

এই ধরণের তথ্য লিখে আয় করতে চাইলে…

আপনার নিজের একটি তথ্যমূলক লেখা আপনার নাম ও যোগাযোগ নম্বরসহ আমাদের ইমেল করুন contact@sobbanglay.com

Click to comment

Leave a Reply

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

To Top
error: লেখা নয়, লিঙ্কটি কপি করে শেয়ার করুন।

শুধুমাত্র খাঁটি মধুই উপকারী, তাই বাংলার খাঁটি মধু খান


ফুড হাউস মধু

হোয়াটস্যাপের অর্ডার করতে এখানে ক্লিক করুন