মেজদাকে লেখা সুভাষ চন্দ্রের শেষ চিঠি

মেজদাকে লেখা সুভাষ চন্দ্রের শেষ চিঠি

দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের প্রাক্কালে জার্মানি থেকে গোপনে জাপান যাওয়ার আগে মেজদা শরৎচন্দ্র বসুকে নেতাজি একটি চিঠি লেখেন। মনে করা হয়ে থাকে মেজদাকে লেখা সুভাষ চন্দ্রের শেষ ব্যক্তিগত চিঠি এটি।

পরম পূজনীয় মেজদাদা,

আজ পুনরায় আমি বিপদের পথে রওনা হইতেছি। এবার কিন্তু ঘরের দিকে। হয় তো পথের শেষ আর দেখিব না। যদি তেমন বিপদ পথের মাঝে উপস্থিত হয় তাহা হইলে ইহজীবনে আর কোনও সংবাদ দিতে পারিব না। তাই আজ আমি আমার সংবাদ এখানে রাখিয়া যাইতেছি — যথাসময়ে এ সংবাদ তোমার কাছে পৌঁছিবে। আমি এখানে বিবাহ করিয়াছি এবং আমার একটি কন্যা হইয়াছে। আমার অবর্তমানে আমার সহধর্মিণী ও কন্যার প্রতি একটু স্নেহ দেখাইবে – যেমন সারাজীবন আমার প্রতি করিয়াছ। আমার স্ত্রী ও কন্যা আমার অসমাপ্ত কার্য শেষ করুক— সফল ও পূর্ণ করুক—ইহাই ভগবানের নিকট আমার শেষ প্রার্থনা।

আমার ভক্তিপূর্ণ প্রণাম গ্রহণ করিবে—মা, মেজবৌদিদি এবং অন্যান্য গুরুজনকে দিবে।

ইতি—বার্লিন ৮ই ফেব্রুয়ারী, ১৯৪৩
তোমার স্নেহের ভ্রাতা
সুভাষ

তথ্যসূত্র


  1. অগ্নিযুগের চিঠি, শুভেন্দু মজুমদার, চিঠি নং - ৮৩, পৃষ্ঠা - ১৭৫
  2. https://www.anandabazar.com/
  3. http://www.banginews.com/

আপনার মতামত জানান