ইতিহাস

পাওলো কোয়েলহো

পাওলো কোয়েলহো ডিসুজা (Paulo Coelho de Souja) একজন ব্রাজিলীয় ঔপন্যাসিক এবং গীতিকার যিনি ‘দ্য অ্যালকেমিস্ট’ উপন্যাসের জন্য বিশ্ব সাহিত্যে বিখ্যাত হয়ে আছেন। তাঁর এই উপন্যাসটি ৮০ টি ভাষায় অনূদিত হয়েছে। সত্তরের দশকে সঙ্গীত রচনার পাশাপাশি পপ ও রক মিউজিক নিয়ে একাধিক শিল্পীর সঙ্গে তিনি কাজ করেছিলেন। হিপ্পি আন্দোলনের অংশ হিসেবে তিনি সারা পৃথিবী জুড়ে ঘুরে বেড়িয়েছিলেন। এই সময় প্রাচ্য ধর্ম এবং গুহ্যবিদ্যা সম্পর্কেও তিনি আগ্রহী হয়ে ওঠেন। জীবনের বিচিত্র অভিজ্ঞতা এবং গভীর জীবনদর্শন তাঁর লেখাগুলিকে সমৃদ্ধ করেছে।

১৯৪৭ সালের ২৪ আগস্ট ব্রাজিলের রিও ডি জেনেরিওতে একটি ধর্মপ্রাণ ক্যাথলিক পরিবারে পাওলো কোয়েলহোর জন্ম হয়। তাঁর বাবার নাম ছিল পেদ্রো কুইমা কোয়েলহো ডিসুজা। তিনি ছিলেন একজন ইঞ্জিনিয়ার। আর মা ছিলেন লিজিয়া আরারিপ কোয়েলহো ডিসুজা। তাঁরা দুজনেই ছিলেন অত্যন্ত কঠোর মানসিকতার মানুষ।

ছোটবেলায় ব্রাজিলের একটি জেসুইট বিদ্যালয়ে পাওলো কোয়েলহো পড়াশোনা করতেন। ছোট থেকেই লেখালেখি করতে চাইতেন তিনি কিন্তু মা বাবার থেকে কোনোরকম সমর্থন পাননি এ বিষয়ে। ১৭ বছর বয়সে তাঁকে একটি মানসিক হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। ২০ বছর বয়সে সেখান থেকে ছাড়া পাওয়ার আগে তিন বার তিনি সেখান থেকে পালিয়ে আসেন। তিনি এরপর একটি আইন বিদ্যালয়ে পড়াশোনা শুরু করতে শুরু করলেও মাঝপথে তা ছেড়ে দিয়ে দক্ষিণ আমেরিকা, মেক্সিকো, উত্তর আফ্রিকা এবং ইউরোপ ভ্রমণে বেড়িয়ে পড়েন।

১৯৭২ সালে ব্রাজিলে ফিরে এসে তিনি পপ এবং রক সঙ্গীত রচনা করতে থাকেন। তিনি এলিস রেজিনা , রিটা লি এবং ব্রাজিলীয় তারকা রাউল সেইক্সাসের জন্য সঙ্গীত রচনা করেন। রাউল সেইক্সাসের সঙ্গে কাজ করার সূত্রে তিনি জাদুবিদ্যা, গুহ্যবিদ্যা সম্পর্কে পরিচিত হন। ১৯৭৪ সালে সরকারবিরোধী কাজ করার জন্য তাঁকে গ্রেফতার করা হয়।

জেল থেকে ছাড়া পেয়েই ১৯৮০ সাল পর্যন্ত তিনি পলিগ্রাম এবং সিবিএস রেকর্ডের জন্য কাজ করতে থাকেন। এরপরে তিনি নতুন করে ইউরোপ এবং আফ্রিকা ভ্রমণে বেরোন। এই ভ্রমণকালেই তিনি উত্তর-পশ্চিম স্পেনের সান্তিয়াগো দে কম্পোস্তেলার রাস্তায় ৫০০ মাইলেরও বেশি পথ হাঁটেন। এই দীর্ঘ পথে হাঁটার সময় তাঁর মধ্যে এক আধ্যাত্মিক জাগরণ ঘটে। এই যাত্রাপথ ক্যাথোলিক ধর্মের প্রতি তাঁর দৃষ্টিভঙ্গি বদলে দেয়।

১৯৮২ সালে প্রকাশিত তাঁর প্রথম বই ‘হেল আর্কাইভ’ (Helll Archives) পাঠকমনে গভীরভাবে দাগ কাটতে পারেনি। ১৯৮৬ সালে সান্তিয়াগো দে কম্পোস্তেলার তীর্থক্ষেত্র থেকে ফিরে এসে সেই যাত্রাপথ থেকে অনুপ্রেরণা নিয়ে ‘দ্য পিলগ্রিমেজ’ লেখেন তিনি। তার ঠিক পরের বছরেই ১৯৮৭ সালে তিনি লেখেন সেই , ‘দ্য অ্যালকেমিস্ট’। এই বইটি নিঃসন্দেহে পাওলো কোয়েলহোর সর্বশ্রেষ্ঠ সৃষ্টি। আন্তর্জাতিক স্তরে বেস্টসেলার হওয়া এই বইটির কমপক্ষে ৬ কোটি ৫০ লক্ষ কপি বিক্রি হয়েছে। কোন জীবিত লেখকের সর্বাধিক ভাষায় অনূদিত বই হিসেবে এটি গিনেস বুক অফ ওয়ার্ল্ড রেকর্ডে জায়গা করে নিয়েছে। ‘দ্য অ্যালকেমিস্ট’-এর পরে তিনি প্রতি দুই বছরে অন্তত একটি করে বই লেখেন।

তাঁর লেখা একাধিক উপন্যাসের মধ্যে মাত্র চারটি হল আত্মজীবনীমূলক, বাকি সবই কাল্পনিক। সেই চারটি উপন্যাস হল- ‘দ্য পিলগ্রিমেজ’, ‘হিপ্পি’, ‘দ্য ভালকাইরিস’ এবং ‘আলেফ’। তাঁর অন্যান্য বইগুলির মধ্যে ‘মকতুব’, ‘দ্য ম্যানুয়াল অফ দ্য ওয়ারিয়ার্স অফ দ্য লাইট’, ‘লাইক দ্য ফ্লোয়িং রিভার’ উল্লেখযোগ্য। তাঁর কাজ ১৭০টিরও বেশি দেশে প্রকাশিত হয়েছে এবং ৮০ টি ভষায় অনূদিত হয়েছে। ২০১৬ সালের ২২ ডিসেম্বর মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের একটি সংগঠন রিচটোপিয়া সমসময়ের ২০০ জন সবথেকে প্রভাবশালী লেখকের তালিকায় পাওলো কোয়েলহোকে দ্বিতীয় স্থানে রাখে।

পাওলো কোয়েলহোর লেখা অন্যান্য বইগুলি হল, ‘ব্রিডা’ , ‘দ্য সুপ্রিম গিফট’, ‘বাই দ্য রিভার পিয়েড্রা আই স্যাট ডাউন অ্যান্ড ওয়েপ্ট’, ‘দ্য ফিফথ মাউনটেন’, ‘লাভ লেটার্স ফ্রম আ প্রফেট’, ‘ভেরিনিকা ডিসাইডস টু ডাই’, ‘এসেনশিয়াল ওয়ার্ডস’, ‘দ্য ডেভিল অ্যান্ড মিস প্রাইম’, ‘ফাদারস, সন্স অ্যান্ড গ্র্যান্ডসন্স’ ‘ইলেভেন মিনিটস’, ‘দ্য জেনি অ্যান্ড দ্য রোসেস’, ‘লাইফ’ , ‘দ্য জাহির’, ‘রিভাইভড পাথস’, ‘দ্য উইচ অফ দ্য পোর্টবেলো’ , ‘দ্য উইন্টার স্ট্যান্ডস অ্যালোন’, ‘লাভ’, ‘ফ্যাবুলাস’, ‘ম্যানুস্ক্রিপ্ট ফাউন্ড ইন আক্রা’, ‘দ্য স্পাই’।

১৯৮০ সালে পাওলো কোয়েলহো ক্রিশ্চিনা ওইটিচিকাকে বিয়ে করেন। প্রথমে তাঁরা বছরের অর্ধেক সময়ে রিও ডি জেনেরিওতে থাকতেন এবং বাকি অর্ধেকটা কাটাতেন ফ্রান্সের পাইরেনিস পর্বতের কান্ট্রি হাউসে। বর্তমানে তাঁরা সুইজারল্যান্ডের জেনেভাতে থাকেন। বিশ্ব সাহিত্যের ইতিহাসে পাওলো কোয়েলহো একজন অনন্য ব্যক্তিত্ব যাঁর সৃষ্টির আয়নায় বারবার ধরা পড়েছে তাঁর ব্যক্তি জীবনের ওঠাপড়া এবং বিবিধ অভিজ্ঞতা। তাঁর শিল্পসৃষ্টি ব্রাজিল তথা গোটা বিশ্বের রসগ্রাহী পাঠককে ঋদ্ধ করেছে।   

  • telegram sobbanglay

Click to comment

Leave a Reply

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

To Top
error: লেখা নয়, লিঙ্কটি কপি করে শেয়ার করুন।

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবর রহমান - বাঙালির গর্ব



এখানে ক্লিক করে দেখুন ইউটিউব ভিডিও

সাহিত্য অনুরাগী?
বাংলায় লিখতে বা পড়তে এই ছবিতে ক্লিক করুন।

বাংলাভাষায় তথ্যের চর্চা ও তার প্রসারের জন্য আমাদের ফেসবুক পেজটি লাইক করুন